আলোচিত সংবাদ

প্রকৌশলীর বাড়ির পাইপলাইন থেকে বের হলো লাখ লাখ টাকা! (ভিডিও)

বাসাবাড়িতে পাইপলাইন থাকবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু ভা’রতের এক প্রকৌশলীর বাসায় পয়নিস্কাশনের জন্য নয়, বরং টাকার পাইপলাইনের সন্ধান মিলেছে।

যেটা খোলা মাত্রই স্রোতের মতো বেরিয়ে আসতে থাকে রুপির পর রুপি, যার পরিমাণ প্রায় ২৫ লাখ। বাংলাদেশি টাকায় যার পরিমাণ ২৮ লাখ ৮১ হাজার ৪২১। সম্প্রতি এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাই’রাল হয়েছে।

দ্য হিন্দু, ইন্ডিয়া টিভি নিউজসহ ভা’রতের একাধিক গণমাধ্যম জানিয়েছে, ব্যাঙ্গালুরুতে গণপূর্ত দপ্তরের এক প্রকৌশলীর বাসায় হানা দিয়ে এমনই টাকার পাইপলাইন খুঁজে পেয়েছেন কর্ণাট’কের দু’র্নীতি দমন ব্যুরোর কর্মক’র্তারা। তারা জানান, রাজ্যে দু’র্নীতি বিরোধী অ’ভিযানে স’ন্দেহভাজন দু’র্নীতিবাজ সরকারি কর্মক’র্তাদের বাড়িতে অ’ভিযানের অংশ হিসেবে এ অ’ভিযান চালানো হয়েছে।

দু’র্নীতি দমন ব্যুরোর কর্মক’র্তারা বলেন, কালবুর্গি জে’লায় গণপূর্ত বিভাগের যুগ্ম প্রধান প্রকৌশলী সানথা গাউদা বিরাদারের বাসায় তারা টাকা পাইপলাইনটির খোঁজ পান। পাইপলাইন খোলা মাত্র বেরিয়ে আসতে থাকে কাড়ি কাড়ি রুপি। যার পরিমাণ প্রায় ২৫ লাখ রুপি। এ ছাড়াও উ’দ্ধার করা হয়েছে বিপুল স্বর্ণালংকার।

গো’পন সূত্রে টাকার পাইপলাইনের খবর আগেই পেয়েছিলেন দু’র্নীতি দমন ব্যুরোর কর্মক’র্তারা। তাই অ’ভিযানের সময় তারা একজন মিস্ত্রিকে সঙ্গে করে নিয়ে যান। তাকে দিয়ে পাইপ খোলার পর টাকা বেরিয়ে আসতে থাকে।

কর্মক’র্তারা জানান, মূলত বাসার মধ্যে এ ধরনের পাইপলাইন বসানোই হয়েছিল টাকা লুকিয়ে রাখার জন্য। কারণ পাইপলাইনের সঙ্গে অন্য কোনো ধরনের সংযোগ ছিল না।

পরে এমন আরও পাইপলাইনের খোঁজ পাওয়া যায়। এটি ছাড়াও রাজ্যের ৬০টি ঠিকানায় ১৫ জন স’ন্দেহভাজন দু’র্নীতিবাজ ও অ’বৈধ সম্পদের মালিক সরকারি কর্মক’র্তাদের বাসায় অ’ভিযান চালিয়েছেন বলেও জানান দু’র্নীতি দমন ব্যুরোর কর্মক’র্তারা।

Back to top button