আলোচিত সংবাদ

কেন্দ্রে এক ভোটারকে ইভিএম বোঝাতেই ৪০ মিনিট গায়েব, তবুও দিতে পারলেন না ভোট

এবার পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে সকাল সাড়ে ৮ টায় লাইন ধরেন মুক্তার হোসেন। সাড়ে ১১টায় যখন বুথে প্রবেশ করেন তাকে ভোট কিভাবে দেবেন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ১৫ মিনিট ধরে তাকে বুঝিয়ে বুথে প্রবেশ করান।

কিছুক্ষণ বুথে ভোট দেওয়ার চেষ্টা করে বেরিয়ে এসে মুক্তার জানান তিনি ভোট দিতে পারেননি।কারণ তার ভোট কাস্ট না হওয়ায় মেশিন হ্যাঙ্গ হয়েছিল। যে কারণে অন্য ভোটারদেরও ভোট দেওয়ার সুযোগ ছিল না।

অগত্যা পুলিং অফিসার আবদুল আজিজ মুক্তারকে কিভাবে বোতাম চেপে ভোট দেবেন তা আবারও বোঝানো শুরু করেন। এভাবে কেটে যায় আরও ২৫ মিনিট। এভাবে মুক্তারের জন্য একটি বুথেই নষ্ট হয় ৪০ মিনিট।জানা যায়, এটি বন্দরের

২৫ নম্বর ওয়ার্ডে ফজলুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের চিত্র। কেন্দ্রটিতে মুক্তারের মতো অনেক অসচেতন ভোটার থাকায় তাদের ভোট প্রদান সম্পর্কে বোঝাতে গিয়ে ভোট গ্রহণে ধীরগতি দেখা দেয়।

এতে বিরক্ত হয়ে অনেক ভোটার কেন্দ্র থেকে ফিরে যান ভোট না দিয়েই।এ বিষয়ে কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার এমএ জলিল বলেন, তার কেন্দ্রে মোট ভোটার ২ হাজার ৯৯৫ জন। পুরুষ ভোটার ১ হাজার ৬০২ জন, নারী ভোটার ১ হাজার ৬২৩ জন।

Related Articles

Back to top button