বিনোদন

বিরাটের অবশ্যই দোষ রয়েছে: অনুষ্কা

ভারতের টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিয়েছিলেন আগেই। তারপর ওয়ানডের নেতৃত্ব হারান তিনি। আর গেল শনিবার টেস্ট অধিনায়কত্বও ছেড়েছেন বিরাট কোহলি।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ হারের পরই এ সিদ্ধান্ত জানান তিনি। অধিনায়কত্ব ছাড়ার পরে কোহলীর জন্য বার্তা দিলেন অনুষ্কা। সেখানে তিনি বলেন, তিনি জানেন কোহলীর মধ্যে অনেক খুঁত রয়েছে। কিন্তু তার পরেও ক্রিকেটের প্রতি তাঁর সদিচ্ছা সব সময় ছিল। তাই তাঁর সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছেন বিরাট-পত্নী।

বিরাটকে শুভেচ্ছা জানিয়ে আনুশকা লিখেছেন- ২০১৪ সালে যখন টেস্ট ক্রিকেটের অধিনায়কত্ব তিনি গ্রহণ করেন, কতই না খুশি হয়েছিলেন তিনি। প্রাক্তন অধিনায়ক এম এস ধোনির সঙ্গে কথোপকথনে ব্যস্ত ছিলেন দুজনেই, হাসি মজার ছলেই ধোনি সেদিন বলেছিলেন, দায়িত্ব গ্রহণের পর অল্প দিনের মধ্যেই তার দাড়ি সাদা হতে শুরু করেছে। সেই মুহূর্তেই হো হো করে হেসে ওঠেন সকলে। একজন মানুষ এবং অধিনায়ক হিসেবে বিরাট অনবদ্য। সেদিনের পর অনেক কিছু বদলেছিল, বিরাট অনেক বড় হয়েছিলেন। জাতীয় দলের হয়ে বিরাট যতটা করেছেন সেটা বলে বোঝানো সম্ভব নয়!

আনুশকা আরও লেখেন, ‘একজন অমায়িক সাধাসিধা মানুষ কতটা ভালো উদ্দেশ্য রাখলে আজকে এই জায়গায় পৌঁছায় সেটা তোমায় দেখলেই বোঝা যায়। মুহূর্তের মধ্যে চ্যালেঞ্জ নিয়ে দেখিয়ে দিয়েছ তুমি। সবসময় মাঠে নয়, জীবনের ক্ষেত্রেও! তোমার পাশে বসে তোমায় কাঁদতে দেখেছি, কিন্তু ভাঙতে নয়, আপস করনি কোনো ক্ষেত্রে। হাজার পরীক্ষার পরেও নিজেকে প্রমাণ করার লড়াইয়ে যে খারাপ কিছু গ্রহণ করনি, তার জন্য অনেক ধন্যবাদ এবং গর্বিত বোধ করছি।’ মেয়ে ভামিকাও বাবার জন্য একদিন অসীম গর্ব বোধ করবে বলে ধারণা আনুশকার।

আরও লিখেছেন- বিরাটের অবশ্যই দোষ রয়েছে কিন্তু তারপরেও তিনি কঠিন পরিস্থিতিতে শক্তভাবে দাঁড়িয়ে থেকেই কাজ করে গেছেন। তার লোভ নেই, শুধুই ভালো করার প্রচেষ্টা! ৭ বছরে অনেক কিছু করেছ এবং প্রত্যেকটি ভালো কিছু!

Related Articles

Back to top button