খেলাধুলা

১-০ গোলে হার, রেকর্ডের দুয়ার খুলে গেল আর্জেন্টিনার

পরাজয়ের জন্য একটি গোলই যেমন যথেষ্ট তেমনি এতে অন্য দলেরও কপাল খুলে যেতে পারে! এমনি এক অঘটনার জন্ম হয়েছে ফুটবল দুনিয়ায়। পরিসংখ্যান অনুযায়ী ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে আলজেরিয়ার অবস্থান ২৯,

আর ইকুয়েটোরিয়াল গিনি আছে ১১৪-এ। আলজেরিয়া বর্তমান চ্যাম্পিয়নও, দলে খেলেন রিয়াদ মাহরেজদের মতো খেলোয়াড়রা। সেই দলটাই গত রাতে হেরেছে গিনির কাছে। তাদের ১-০ গোলে হার রেকর্ডের দুয়ার খুলে দিয়েছে আর্জেন্টিনার সামনে।

গেল বছরই বিশ্বরেকর্ডটা গড়া হয়েছিল। ইউরোজয়ী ইতালি টানা ৩৭ ম্যাচে জিতে গড়েছিল এই রেকর্ড। সেই কীর্তিকেই রীতিমতো হুমকির মুখে ফেলে দিয়েছিল আলজেরিয়া। গত রাতের আগ পর্যন্ত দলটা অপরাজিত ছিল ৩৫ ম্যাচে। গিনির কাছে ১-০ গোলে হেরে থেমেছে সেই যাত্রা।

গেল বারের চ্যাম্পিয়নরা চলমান আফ্রিকান নেশন্স কাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে তাও ড্র করেছিল। দ্বিতীয় ম্যাচে গিনির বিপক্ষে ম্যাচের ৭০ মিনিটে হজম করা গোলের জবাবই দিতে পারেনি দলটি। তাতেই হারের কবলে পড়েছেন মাহরেজরা।

এই হারের ফলে এখন গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায়ের শঙ্কা দলটির। দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে হলে নিজেদের ম্যাচে তো জিততে হবেই, তাকিয়ে থাকতে হবে অন্যদের দিকেও। তবে মাহরেজদের এই হারের ফলে এখন টানা অপরাজিত থাকার বিশ্বরেকর্ডটা গড়ার সুযোগ চলে এসেছে মেসিদের সামনে। বর্তমানে ২৭ ম্যাচ অপরাজিত আছে কোচ লিওনেল স্ক্যালোনির শিষ্যরা। সে ধারাটা আর দশ ম্যাচে ধরে রাখতে পারলেই বিশ্বরেকর্ডটা গড়ে ফেলবে আলবিসেলেস্তেরা।

মেসিদের সামনে আলজেরিয়া তো আছেই, সমান সংখ্যক ম্যাচে অপরাজিত থাকা ব্রাজিল আর স্পেনও হাতছানি দিয়ে ডাকছে দলটিকে। শেষ দুই দল অবশ্য রেকর্ডটা গড়েছিল বেশ আগে। ব্রাজিল গড়েছিল ১৯৯৩ থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত অপরাজিত থেকে। আর স্পেনের এই রেকর্ডটা এসেছে ২০০৭ থেকে ২০০৯ সালে।

Related Articles

Back to top button