আলোচিত সংবাদ

বিশ্ববিদ্যালয়ের খোলা মাঠে রান্না হচ্ছে শাবির আ’ন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের

বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ, হল ছাড়ার নির্দেশনার পর সোমবার থেকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে হলের ক্যান্টিনও। আর মঙ্গলবার থেকে বন্ধ হয়ে যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ক্যাফেটেরিয়া

তবে হল ছাড়ার নির্দেশনা না মেনে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত ক্যাম্পাসে অবস্থান নিয়ে রেখেছেন শাহ’জালাল বিজ্ঞান ও প্রযু’ক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। রাতের খাবারের ব্যবস্থা না থাকায় মাঠেই চুলা জ্বালিয়ে তারা রান্না করেছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের গোল চত্বরের সামনের খোলা মাঠে হয় রান্নার এই আয়োজন।ওই মাঠে রাত সাড়ে ৯টার দিকে গিয়ে দেখা যায়, মাটির চুলা তৈরি করে বড় বড় হাঁড়িতে রান্নার করা হচ্ছে। মাঠে বসেই শিক্ষার্থীদের কেউ পেঁয়াজ-ম’রিচসহ সবজি কাটছেন। কেউ লাকড়ি জোগার করছেন।

তবে রান্নার জন্য আনা হয়েছে বাবুর্চি।রান্নার তদারকিতে থাকা অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী মাহফুজ আহম’দ বলেন, ‘আমাদের হলের ক্যান্টিন বন্ধ, আশপাশের রেস্টুরেন্টও বন্ধ করে দিয়েছে পু’লিশ। এখন আম’রা খাওয়া নিয়ে সমস্যা পড়েছি।‘তাই আম’রা নিজেরা চাঁদা তুলে ও কিছু বড় ভাইদের সহযোগিতায় এখানে রান্নার আয়োজন করেছি। এখানেই সবাই খাব। আ’ন্দোলন যতদিন চলবে এভাবে রান্নার আয়োজনও চলবে।’

এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ২টি ছা’ত্রী হল ও ৩টি ছাত্র হল রয়েছে। এতে প্রায় দুই হাজার শিক্ষার্থী থাকেন। তবে হল ছাড়ার নির্দেশনার পর অর্ধেক শিক্ষার্থীই চলে গেছেন। আ’ন্দোলনের জন্য রয়ে গেছেন হাজারখানেক।বেগম সিরাজুন্নেসা হলের প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগ দাবিতে গত বৃহস্পতিবার থেকে আ’ন্দোলনে নামেন ওই হলের ছা’ত্রীরা। তারা রোববার উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহম’দকে অব’রুদ্ধ করলে পু’লিশ তাদের লা’ঠিপে’টা করে উপাচার্যকে মুক্ত করে।

এ সময় পু’লিশের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সং’ঘর্ষ হয়। এরপর থেকে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে আ’ন্দোলন চালিয়ে আসছেন শিক্ষার্থীরা

Related Articles

Back to top button