বিনোদন

অনন্ত জলিলের সিনেমা দিয়ে ইন্ডাস্ট্রির কোনো লাভ নেই: মিশা

ঢাকাই সিনেমার আলোচিত নায়ক অনন্ত জলিল। এবারের ঈদুল আজহায় মুক্তি পেয়েছে তার বিগ বাজেটের সিনেমা ‘দিন: দ্য ডে।এটি দেশীয় সিনেমায় ক্ষেত্রে বড় একটি রেকর্ড,

কারণ এ পরিমাণ বাজেটের সিনেমা এর আগে কখনো বাংলাদেশে মুক্তি পায়নি।তবে প্রথম সপ্তাহে আলোচিত এই সিনেমাটি শতাধিক প্রেক্ষাগৃহে চললেও দ্বিতীয় সপ্তাহে এর হলসংখ্যা অনেক কমে যায়। যদিও সিনেমাটি দর্শকের ব্যাপক সাড়া পেয়েছে বলে দাবি অনন্তের।

এর আগে একাধিক গণমাধ্যমে বারবার অনন্ত জলিল দাবি করেছেন, তার এই সিনেমার বাজেট ১০০ কোটি টাকারও বেশি। এটি বাংলাদেশ ও ইরানের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত। এতে বিভিন্ন দেশের শিল্পী কলাকুশলী কাজ করেছেন।তবে আলোচিত এই সিনেমাটির একটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর। তিনি মনে করেন, ‘দিন-দ্য ডে’র মতো সিনেমা দিয়ে দেশের কোনো লাভ হয় না। এগুলোকে বড়জোর শৌখিন সিনেমা বলা যেতে পারে।

সম্প্রতি গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মিশা আরো বলেন, “দিন-দ্য ডে’ নিয়ে কথা বলার কী আছে। এই সিনেমা দিয়ে ইন্ডস্ট্রির কোনো লাভ নেই। ১২০ কোটি টাকার সিনেমা আমাদের এখানে বানানো সম্ভব নয়। এত টাকার সিনেমা চলবে কোথায়, টাকাটা উঠবে কীভাবে? কাজেই এটা নিয়ে আমার কোন মাথা ব্যাথা নেই। এছাড়া এই সিনেমায় প্রফেশনাল কোন শিল্পী নেই।

ওনারা সাধারণত শৌখিন শিল্পী।” অনন্ত জলিল সম্পর্কে মিশা সওদাগর বলেন, “তিনি মূলত একজন বড় পর্য্যায়ের ব্যবসায়ী। একজন সিআইপি (বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি)। তার ফ্যাক্টরিতে ১২-১৩ হাজার লোক কাজ করে। তিনি তার স্ত্রীকে নিয়ে নিজের ভালো লাগা থেকেই সিনেমা বানান। এখানে ইন্ডাস্ট্রির বিন্দুমাত্র লাভ নেই। ইন্ডাস্ট্রির লাভ ‘পরাণ’, ‘হাওয়া’, ‘শান’, ‘গলুই’ দিয়ে।”

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ ও ইরানের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হয়েছে ‘দিন দ্য ডে’। সিনেমাটির বাজেট ১০০ কোটি টাকা। এই সিনেমার বাংলাদেশের অংশের প্রযোজক অনন্ত জলিল। অর্থাৎ বাংলাদেশে শুটিংয়ে যে অর্থ ব্যয় হয়েছে, তিনি সেই অংশটুকুতেই লগ্নি করেছেন। অন্যান্য দেশের শুটিংয়ে ব্যয় বহন করেছে ইরানি প্রযোজক। বাজেটের কারণে বেশ আগে থেকেই আলোচনায় রয়েছে ‘দিন-দ্য ডে’। মুক্তির পরেও কম আলোচনা-সমালোচনা হয়নি।

Related Articles

Back to top button