বিনোদন

পুত্র সন্তান নিয়ে আমরা নিশ্চিত নই : শরিফুল রাজ

ঢালিউডের রোমান্টিক দম্পতি রাজ-পরী। একসঙ্গে পথচলার শুরু থেকেই নিজেদের মুহূর্তগুলো রঙিন করে তুলেছেন তারা। আপাতত দুই থেকে তিন হওয়ার অপেক্ষায় এই দম্পতি। পাশাপাশি অনাগত সন্তানের জন্য কেনাকাটা করেও ঘরভর্তি করছেন।

গত ২ আগস্ট বিকেলে ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড পেজে বেশ কিছু ছবি ও ভিডিও পোস্ট করেছেন পরীমণি। সেখানে দেখা যায়, অনাগত সন্তানের জন্য কেনাকাটা করে পুরো রুম ভরিয়ে ফেলেছেন রাজ-পরী। ক্যাপশনে নায়িকা লিখেছেন, ‘তার আসার আয়োজন।’

পরদিন (৩ আগস্ট) রাজের সঙ্গে ফের শপিংয়ে যান পরী। সেখানে তোলা বেশ কিছু ছবি পোস্ট করে তিনি লেখেন, ‘একটা রঙিন প্রজাপতির অপেক্ষায়। আর একটু শপিং।’

গত সপ্তাহ থেকেই ঢাকার বিভিন্ন বেবিশপে ঘুরে ঘুরে অনাগত সন্তানের জন্য কেনাকাটা করেন রাজ-পরী। বাইরে ঘুরে ঘুরে শপিংয়ের পাশাপাশি অনলাইনেও কেনাকাটা করছেন নায়িকা। সন্তানের জন্য কেনা সেসব জিনিস সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করে দেখার সুযোগ দিয়েছেন নায়িকা। এক কথায়, নতুন অতিথিকে স্বাগত জানাতে আয়োজনের কমতি নেই ঢালি পাড়ার এই রোমান্টিক দম্পতির।

তারকা দম্পতির অনাগত সন্তানের জন্য কেনা জিনিসপত্র দেখে নেটিজেনরা অনুমান করছেন, ছেলের মা হচ্ছেন পরী। এ প্রসঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে নায়িকার স্বামী অভিনেতা শরিফুল রাজ বলেন, ‘সত্যি বলতে, কিসের ভিওিতে এমন খবর ছড়িয়েছে, তা আমার জানা নেই। পুত্র সন্তান নিয়ে আমি এবং পরীমণি এখনও নিশ্চিত নই। দুজনই শেষ মুহূর্তের সারপ্রাইজের জন্য অপেক্ষায় আছি।’

রাজ-পরীর দুষ্টু, মিষ্টি কিংবা আবেগমাখা কর্মকাণ্ড বরাবরই ভক্তদের নজর কেড়েছে। অন্তর্জালে তাদের নানান মুহূর্তের ছবি দেখে প্রেমের আকুতি জেগেছে নেটিজেনদের মনে।গত বুধবার (৩ আগস্ট) পরীর সঙ্গে তোলা একটি ছবি পোস্ট করে স্ত্রীর প্রতি ভালোবাসার কথা জানিয়েছিলেন শরিফুল রাজ। তিনি লেখেন, ‘তোমার সঙ্গে দেখা হওয়ার পর আমার জীবন সম্পূর্ণরূপে বদলে গেছে। আমরা যখন বিয়ে করেছি, তখন থেকেই আমাদের জীবনের সবচেয়ে সুন্দর ধাপ শুরু করেছি। যেখানে আমাদের ভালোবাসা আরও শক্তিশালী হয়েছে।’

রাজ আরও লেখেন, ‘মুগ্ধ হয়ে তোমার প্রশংসা করি। তোমার উপস্থিতি ও ভালোবাসা দিয়ে আমার জীবনকে আশীর্বাদপুষ্ট করার জন্য তোমাকে ধন্যবাদ, পরী।’এদিকে বন্ধু দিবসে (রোববার) পরীও স্বামীকে ভালোবাসার বার্তা দিয়েছেন। রাজের উদ্দেশে নায়িকা লিখেছেন, ‘হ্যাপি ফ্রেন্ডশিপ ডে রাজ। আমার সকল ব্যাথার কথা আমি খুব সহজেই তোমার কাছে দ্বিধাহীন বলতে পারি। কত অল্প সময়ে হৃদয়ের সবথেকে কাছের মানুষটা আমার; আমি তোমাকে অনেক ভালোবাসি।’

Related Articles

Back to top button