আলোচিত সংবাদ

হঠাৎ করেই দুই সাপের মধ্যে তু-মুল হা-ড্ডা হাড্ডি ল-ড়াই, ক্যামরা ম্যান কোন রকম পালিয়ে আসলেন, ভাইরাল ভিডিও!

সোশ্যাল মিডিয়াতে বর্তমানে অনেক ভিডিও দেখা যায়। অনেক মানুষ অনেক ধরনের বিনোদন এবং বিভিন্ন ধরনের কাজের ভিডিও দিয়ে থাকেন। সকল ভিডিও কিছু কিছু সময়ে আলোচিত ,সমালোচিত,প্রশংসার জন্ম দেয়। তেমনি কিছু কিছু ভিডিও থেকে আবার অনেক কিছু শেখার থাকে। তেমনি সোশ্যাল মিডিয়ার বর্তমানে উল্লেখযোগ্য দিকগুলো হলো এর মাধ্যমে সকল কিছু জানা যায়।

প্রায় সকলেই সোশ্যাল মিডিয়াতে থাকে এবং বিভিন্ন চলমান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করে। মানুষ তার প্রতিভা সকল বিষয় দেখাতে চায় এবং চায় সহজে ভাইরাল হতে । যাতে তার সম্পর্কে জানতে পারে। আগে সোশ্যাল মিডিয়ার প্রতি এতটা ঝোঁক মানুষের ছিল না। কিন্তু বর্তমানে সকলে সোশ্যাল মিডিয়াতে সবচেয়ে বেশি সময় পার করে থাকেন। বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা এবং মন্তব্য করে থাকেন।

মানব সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়ার পাশাপাশি এমন অনেক বিষয় বস্তু তুলে ধরে। যা আলোচনা ও সমালোচনার শীর্ষে থাকে। বিভিন্ন জীবজন্তু আছে যাদের জীবন তত্ত্ব ,জীবনচক্র ,খাদ্যাভাস এবং অনেক সময় তাদের লড়াই ভিডিওতে পরিণত করে সোশ্যাল মিডিয়াতে আপলোড করা হয় ।যার ফলে এগুলো অনেক সময় অনেক বেশি সমালোচিত হয় এবং অনেক বেশি মন্তব্য করে থাকে এই ভিডিও গুলোতে ।

একটি ভিডিও ভাইরাল হয় যেখানে দুটি সাপ একে অপরের সাথে লড়াই করতে থাকে এবং কেউ অগোচরে সেই লড়াইটি, সেটি ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়াতে দেয়। যাতে স্পষ্টতই তাদের লড়াই চোখে পড়ে। লড়াইটি ছিলো এমন যে একটি
কোবরা সাপের সাথে একটি ছোট সাপ এর লড়াই। যেখানে তারা একে অপরকে ছোবল দিতে থাকে।

এ ছোবলের একপর্যায়ে ছোট সাপটি কোবরা সাপ কে রেখে চলে যায়। যদিও ছোট ছোট সাপটি কি প্রজাতির ছিল তা এখনো জানা যায়নি তবে তাদের লড়াই ছিল মনোমুগ্ধকর। একটি কোবরা সাপ কি পরিমান বিষাক্ত এবং এর হিংস্র তারা বলে যে কোন মানুষের প্রাণ চলে যেতে পারে কিন্তু একটি ছোট সাপ যে কিনা কোবরা সাপের ধারে কাছেও নেই।

লড়াই করতে মোটেও ভয় পায়নি এমনকি সে সে সে কোবরা সাপ কে রেখে চলে যায়। এর থেকে বোঝা যায় বড় আর শক্তি বেশি হলেই জেতা যায় না । ক্ষুদ্র রাও অনেক সময় মাথা চাড়া দিয়ে উঠতে পারে ।শুধু একটা সুযোগের অপেক্ষা। এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রচুর আলোড়ন সৃষ্টি করে। বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য তৈরি হতে থাকে এবং নানা মানুষ নানা ধরনের সমালোচনা করতে থাকে এবং মানুষের মন্তব্য গুলো ছিল অবাক করার মত।

Related Articles

Back to top button