আলোচিত সংবাদ

স্বামীর কিডনি বিক্রির টাকায় গোপনে বিয়ে করলেন স্ত্রী

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার লাঙ্গলঝাড়া গ্রামে কিডনি বিক্রির টাকা নেওয়ার পর স্বামীকে গোপনে তালাক দিয়ে অন্যত্র বিয়ে করেছেন এক নারী। এ ঘটনা জানার পর সাবেক স্বামী বিষপান করে মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) সকালে কলারোয়া থানার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দীন মৃধা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে বুধবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে ওই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তি সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আইচপাড়া গ্রামের মৃত লতিফ সরদারের ছেলে আতাউর রহমান (৪০)। অভিযুক্ত ব্যক্তি উপজেলার লাঙ্গলঝাড়া গ্রামের শরিফুল ইসলামের মেয়ে রুবিনা খাতুন।

নিহতের মা জাহানারা খাতুন জানান, তার ছেলে প্রথম স্ত্রী ও দুই সন্তান রেখে গোপনে রুবিনা খাতুনকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। কিছু দিন পর ভারতে গিয়ে একটি কিডনি বিক্রি করে প্রায় তিন লাখ টাকা ছোট স্ত্রী রুবিনাকে দেয়। এ সময় টাকা পাওয়ার পর রুবিনা আতাউর রহমানকে তালাক দিয়ে অন্য একটি ছেলেকে গোপনে বিয়ে করে। এ খবর শোনার পর বিষ খেয়ে মারা যান আতাউর রহমান।

নিহতের শাশুড়ি মর্জিনা খাতুন বলেন, আতাউর অন্য স্থান থেকে বিষ খেয়ে বাড়ির উঠানে এসে পড়ে যায়। এ সময় তাকে উদ্ধার করে কলারোয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

লাঙ্গলঝাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক এম এ কালাম বলেন, আমার ইউনিয়নের একজন বিষপানে মারা গেছেন, এই খবরটি শুনেছি। এ সংবাদ পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

এ বিষয়ে কলারোয়া থানার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দীন মৃধা বলেন, আতাউর নিজের কিডনি বিক্রি করেন। পরে সেই টাকা দিয়েছিলেন ছোট স্ত্রী রুবিনাকে। তবে রুবিনা খাতুন গোপনে অন্য একটি ছেলেকে বিয়ে করায় অভিমানে বিষপান করে মারা গেছেন আতাউর। ইতোমধ্যে এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button