অপরাধ

হাতুড়িপে’টা করলেন ব্যবসায়ী!!

ময়মনসিংহের ভালুকায় গ্রামীণ ফোনের স্ক্র্যাচ কার্ডের দরকষাকষি নিয়ে আবু সাঈদ আহমেদ অন্তর (২২) নামে এক গ্রামীণফোন কর্মীকে হাতুড়ি দিয়ে বেধড়ক পি’টিয়েছে হৃদয় নামে এক ব্যবসায়ী। পরে আ’হত আবু সাঈদকে গুরুতর অবস্থায় চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজে’লার জমিরদিয়া মায়ের ম’সজিদ বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ভালুকা থা’নায় হৃদয়ের নামে ও অ’জ্ঞাত নামা ৪/৫ জনকে আ’সামি করে অ’ভিযোগ দায়ের করেছেন আবু সাঈদ।

আ’হত আবু সাঈদ আহমেদ অন্তর ভালুকা গ্রামীণ ফোন ডিস্ট্রিবিউশন হাউজে সেলস্ এক্সিকিউটিভ হিসাবে কর্ম’রত। সে নেত্রকোনা জে’লার বারহাট্টা উপজে’লার নাসির উদ্দিনের ছে’লে। হা’মলাকারী হৃদয় উপজে’লার জমিরদিয়া মায়ের ম’সজিদ বাজারের হৃদয় টেলিকম এন্ড কসমেটিকস্ দোকানের মালিক। সে গফরগাঁও উপজে’লার আসাদ আলীর ছে’লে।

পু’লিশ ও নির্যাতিত অন্তর জানায়, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ভালুকা গ্রামীণ ফোন ডিস্ট্রিবিউশন হাউজের সেলস্ এক্সিকিউটিভ আবু সাঈদ আহমেদ অন্তর উপজে’লার জমিরদিয়া মায়ের ম’সজিদ বাজারের হৃদয় টেলিকম এন্ড কসমেটিকস্ দোকানে গ্রামীণ ফোনের স্ক্র্যাচ কার্ড বিক্রি করতে যায়। এ সময় হৃদয় স্ক্র্যাচ কার্ডের দরদাম করে নেয়। স্ক্র্যাচ কার্ডের দাম দেয়ার সময় হৃদয় নির্দিষ্ট দামের চাইতে কম টাকা দিতে চায়। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে কথা কা’টাকাটির এক পর্যায়ে হৃদয় হাতুড়ি দিয়ে আবু সাঈদ আহমেদ অন্তরের মা’থায় আ’ঘাত করে। এ সময় অন্তর অ’জ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে হৃদয় ও তার সহযোগীরা অন্তরের ব্যাগে থাকা ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা ও ২৫ হাজার টাকা মুল্যের স্ক্র্যাচ কার্ড নিয়ে পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয়রা অন্তরকে উ’দ্ধার করে প্রথমে ভালুকা উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখান থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক অন্তরকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে রেফার্ড করেন।

ভালুকা থা’নার ওসি মাইন উদ্দিন বলেন, পু’লিশ অ’ভিযু’ক্তদের ধ’রার জন্য অ’ভিযান অব্যাহত রেখেছে। অচিরেই তাদের গ্রে’ফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

Back to top button