অপরাধ

বি’কৃত রুচির এক বাবার কারনে দুই তরুণী…

কুমিল্লার দেবীদ্বার উপজে’লার এক গ্রামে মা’দকাস’ক্ত পিতার বি’রুদ্ধে দুই কি’শোরী কন্যাকে শ্লী’লতাহা’নির চেষ্টার অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই ঘটনায় সোমবার সন্ধ্যায় কি’শোরীদের মা থা’নায় এসে বাদী হয়ে মা’দকাস’ক্ত স্বামীর বি’রুদ্ধে শ্লী’লতাহা”নির চেষ্টার অ’ভিযোগ এনে, নারী ও শি’শু নি’র্যা’তন দ’মন আইনে মা’মলা দায়ের করেন।

পু’লিশ মা’মলা দা’য়েরের পরপরই অ’ভিযু’ক্ত মো. আবুবক্কর ছিদ্দিককে আ’ট’ক করেছে। দেবীদ্বার থা’নার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) ইকরাম হোসেন জানান, মে’য়েকে উ’ত্যক্ত করার ঘটনায় তার মায়ের অ’ভিযোগের ভিত্তিতে মো. আবুবক্কর ছিদ্দিককে আ’ট’ক করা হয়েছে।

ওই কি’শোরীদের মা জানান, তার স্বামী রাজমিস্ত্রী’ ঠিকাদার মো. আবুবক্কর ছিদ্দিক (৪৭) প্রায় এক বছর আগে থেকে বড় মে’য়ে ও নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া অ’পর মে’য়েকে শ্লী’লতাহানির চেষ্টা করতে থাকেন।

তিনি বলেন, এ সমস্ত অ’নৈতিক ঘটনায় বাঁ’ধা দিতে গেলে লা’ঠি দা নিয়ে আমাদেরকে আ’ক্রমণের চেষ্টা করে। তার কথার অ’বাধ্য হলে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার হু’মকি দেন। আমাকে ও আমা’র শাশুড়িসহ দুই কন্যাকে বহিরাগত স’ন্ত্রাসী এনে শ্লী’লতাহা’নিসহ হ”ত্যার হু’মকি দিয়ে আসছে।

তিনি বলেন, তার এহেন কর্মকা’ণ্ডে রাগে ক্ষো’ভে কলেজের দ্বিতীয়বর্ষে পড়ুয়া আমা’র পুত্র (১৮) বাড়ি ছেড়ে পা’লিয়ে যায় এবং দাউদকান্দির একটি মোরগের ফার্মে চাকরি নেয়। তার বাবা জানার পর এমন কাজ আর করবে না; এই শর্তে বাড়িতে ফিরিয়ে আনেন। কিন্তু গত ১১ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাত অনুমান ২টায় আমা’র স্বামী নে’শাগ্র’স্ত হয়ে আমা’র দুই কন্যার রুমের দরজা ভে’ঙে ঘরে প্রবেশ করেন এবং তাদের ধরে ধ” র্ষ’ ণের চেষ্টা করেন। আমি তাদের র’ক্ষা করি। পরদিন আমি বাবার বাড়িতে আ’শ্রয় নেই। ওখানেও আমাদের জায়গা না দিতে স’ন্ত্রাসী পাঠিয়ে আমা’র ভাইকে হু’মকি দেন।

তিনি আরো বলেন, ওই ঘটনায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সহযোগিতা চাইলে তাদের কথাও অমান্য করে একই আচরণ করতে থাকেন। অবশেষে আমি পু’লিশের আ’শ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছি।

দেবীদ্বার থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ত’দন্ত) মেজবাহ উদ্দিন জানান, অ’ভিযোগের ভিত্তিতে আ’সামিকে আ’ট’ক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের পরেই বিস্তারিত জানা যাবে।

Back to top button