অন্যান্য

চরে খাদ খননে বাধা দেয়ায় হা’মলা, ৫ শি’শুসহ গু’লিবিদ্ধ ৬

কি’শোরগঞ্জের নিকলীতে জলমহালের বিরোধকে কেন্দ্র প্রতিপক্ষের বাড়িতে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে হা’মলার অ’ভিযোগ উঠেছে সোহেল নামের এক যুবকের বি’রুদ্ধে। এসময় এলোপাতাড়ি গু’লিতে পাঁচ শি’শুসহ ছয়জন গু’লিবিদ্ধ হন। তাদের মধ্যে তিনজনকে হাসপাতা’লে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১১ মে) বিকেলে নিকলী উপজে’লা সদরের ষাইটধার জাফরাবাদ গ্রামে এ হা’মলার ঘটনা ঘটে।

আ’হতরা হলো-আকাশ (১৮), রিয়ান (৮), শাবন্তি (৯), তৃষা (৮), তুহিন (৪) ও নিশা (৬)।

পু’লিশ জানায়, ষাইটধার শুয়াইজানি নদীর পাটিবাঁধ এলাকা তিন বছরের জন্য লিজ নেন জাফরাবাদ গ্রামের সাদ্দাম হোসেন আপন। একই এলাকায় ফসল চাষের জন্য নদীর চর লিজ নেন ষাইটধার গ্রামের জনৈক নুরুল ইস’লাম।

অ’ভিযোগ রয়েছে, নুরুল ইস’লামের ছে’লে স্থানীয় যুবলীগ নেতা সোহেল সরকারি নীতি না মেনে ওই চরে মাছচাষের জন্য খাদ নির্মাণ শুরু করলে সাদাম বাধা দেন। এনিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে সোহেলের সঙ্গে সাদ্দামের কথা-কা’টাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সোহেল বাড়ি থেকে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে সাদ্দামের বাড়িতে হা’মলা চালান। এসময় কয়েক রাউন্ড গু’লি ছোড়েন সোহেল। এতে গু’লিবিদ্ধ হয় পাঁচশি’শুসহ ছয়জন।

আ’হতদের মধ্যে আকাশ নামের এক কি’শোরকে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইস’লাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং রিয়ান ও শ্রাবন্তি নামের দুই শি’শুকে নিকলী উপজে’লা হাসপাতা’লে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেয়া হয়। তবে গু’লিবিদ্ধদের অবস্থা গুরুতর নয় বলে জানিয়েছে পু’লিশ। খবর পেয়ে পু’লিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে হা’মলাকারীদের ধরতে অ’ভিযান শুরু করে।

নিকলী থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ওসি) শামসুল আলম সিদ্দিকী’ জানান, কার্তুজের গু’লিতে ছয়জন সামান্য আ’হত হয়েছে। হা’মলাকারীদের ধরতে অ’ভিযান চলছে। এ ব্যাপারে থা’নায় মা’মলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে পু’লিশ।

Back to top button