বিনোদন

অমিত হাসানের পোড়া কপাল!

চলচ্চিত্রে অমিত হাসানের শুরুটা হয়েছিল নায়কের ভূমিকায়। খ‌্যাতিও পেয়েছিলেন। এখন নিয়মিত খল চরিত্রে অ’ভিনয় করছেন তিনি। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে অ’ভিনয় করেছেন চার শতাধিক চলচ্চিত্রে। উপহার দিয়েছেন ব্যাবসা সফল সিনেমা।

কিন্তু তার ভাগ্যে এখনো জোটেনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার৷ এ জন্য আক্ষেপ করেছেন এই অ’ভিনেতা। বিষয়টিকে ‘পো’ড়া কপাল’ বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

অমিত হাসান আক্ষেপ করে বলেন,’চলচ্চিত্রের সর্বোচ্চ পুরস্কার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। প্রত্যেকটা শিল্পীর স্বপ্ন থাকে এই পুরস্কার প্রাপ্তির। ক্যারিয়ারে এতগুলো ভালো সিনেমা উপহার দিয়েও চলচ্চিত্র পুরস্কার পেলাম না।’

তিনি আরো বলেন,’নেতিবাচক চরিত্রের মধ্যে রয়েছে ‘এইতো প্রে’ম, ‘প্রে’ম প্রে’ম পাগলামী’, ‘পদ্ম পাতার জল’, ‘সুলতানা বিবিয়ানা’। আবার ইতিবাচক চরিত্রের মধ্যে রয়েছে ‘বিদ্রোহী প্রে’মিক’, ‘তুমি শুধু তুমি’, ‘শেষ ঠিকানা’ ইত্যাদি। এমন অনেক সিনেমা আছে পুরস্কার পাওয়ার মতো কিন্তু এখনও পাইনি। মাঝে মাঝে খুব আক্ষেপ হয়। কাউকে দায়ী করছি না। আমা’রই দুর্ভাগ্য। দেখা গেছে, আমা’র সমসাময়িক অনেকেই জুরি বোর্ডের সদস্য হচ্ছেন, সরকারি অনুদান পাচ্ছেন। কিন্তু দীর্ঘ ক্যারিয়ারে দর্শকদের ভালোবাসা ছাড়া আমি কিছুই পেলাম না।’

১৯৯০ সালে ছট’কু আহমেদ পরিচালিত ‘চেতনা’ সিনেমা’র মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অ’ভিষেক ঘটে অমিত হাসানের। একক নায়ক হিসেবে মনোয়ার খোকনের ‘জ্যোতি’ সিনেমায় অ’ভিনয় করে প্রশংসিত হন। শাহীন সুমন পরিচালিত ‘ভালোবাসার রং’ সিনেমা’র মাধ্যমে খলনায়ক হিসেবে আত্মপ্রকাশ ঘটে এই অ’ভিনেতার। এ ছাড়া অনিয়মিতভাবে শতাধিক টিভি নাট’কে অ’ভিনয় করেছেন অমিত হাসান।

এই অ’ভিনেতার হাতে রয়েছে ‘সীমানা’, ‘ইয়েস ম্যাডাম’, ‘মাসুদ রানা’ ও ‘যন্ত্র’ণা’সহ কয়েকটি সিনেমা’র কাজ।

Back to top button