খেলাধুলা

ত্যাগী শেষ ওভা’রে ম্যাচ জেতা’লেও যে ১টি কারণে শন পোলকের চোখে ম্যাচ জয়ের নায়ক মু’স্তাফিজ

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) মঙ্গলবারের (২১ সেপ্টেম্বর) ম্যাচে শেষ দুই ওভা’রে পাঞ্জাব কিংসের মাত্র ৮ রান প্রয়োজন হলেও সেটা নিতে দেননি মু’স্তাফিজুর রহমান ও কার্তিক তিয়াগী।

শেষ ওভা’রে কার্তিকের অসাধারণ বোলিংয়ে রাজস্থান রয়্যালস ম্যাচ জিতলেও ম্যাচের এক্স ফ্যাক্টর হিসেবে মু’স্তাফিজকে বিবেচনা করছেন শন পোলক।তার ১টি কারণ উল্লেখ করে বলেন ম্যাচের ১৯তম ওভা’র করতে এসে উইকেট না নিলেও মাত্র চার রান দেন মু’স্তাফিজ।

এরপর কার্তিকের ওভা’রে বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান নিকোলাস পুরান ও দীপক হুদার উইকেট হারায় পাঞ্জাব। সেই ওভা’রে এক রান দিয়ে ম্যাচটি নিজেদের করে নেন কার্তিক।

ম্যাচ শেষে মু’স্তাফিজকে প্রশংসায় ভাসান পোলক। দক্ষিণ আফ্রিকার এই কিংবদন্তি বলেন, ‘এই খেলায় আপনি একজন এক্স ফ্যাক্টর খুঁজে পাবেন। আমা’র জন্য সেই এক্স ফ্যাক্টর হচ্ছেন ফিজ। আপনি ১৯তম ওভা’রের কথা ধরতে পারেন।

তারা অনেক বড় ঝুঁ’কি নিতে চায়নি। তারা ম্যাচটি ঠাণ্ডা মা’থায় শেষ করতে চেয়েছে। এসব ক্ষেত্রে মু’স্তাফিজদের মতো বোলাররা অনেক কাজে আসে। হার্দিক পান্ডিয়া, কাইরন পোলার্ড, এমনকি রশিদ খানরা ম্যাচের মোড় বদলে দিতে পারে।’

৪ রান দিয়ে রাজস্থানের বোলিং ইনিংস শুরু করেন মু’স্তাফিজ। এরপর ৮ রান দেন নিজের করা দ্বিতীয় ওভা’রে। নিজের তৃতীয় ওভা’রে অবশ্য খানিকটা খরুচে ছিলেন বাঁহাতি এই পেসার। তবে ইনিংসের ১৯তম আর নিজের চতুর্থ ওভা’রে মাত্র ৪ রান দেন।

অ্যাইডেন মা’র্করামের উইকেট পেতে পারতেন মু’স্তাফিজ। কিন্তু অধিনায়ক স্যাঞ্জু স্যামসন বলটাকে তালুবন্দী করতে পারেননি। উইকেট পাওয়ার সম্ভাবনা ছিল আরো একটি। তার বলে লোকেশ রাহুলের ক্যাচ ছেড়েছেন চেতন সাকারিয়া।

১৮৫ রানের বড় পুঁজি গড়েও ক্রিস ম’রিস-চেতন সাকারিয়ার খরুচে বোলিংয়ে হারের শ’ঙ্কা তৈরি হয়েছিল রাজস্থান রয়্যালসের। যদিও কার্তিক ও মু’স্তাফিজে ম্যাচটি জিতে নেয় আইপিএলের প্রথম আসরের শিরোপাজয়ী দল রাজস্থান।

Back to top button